নিজস্ব প্রতিবেদকঃ
ঘন্টার পর ঘন্টা ট্রেনের সিডিউল লন্ড ভন্ড।  বিপাকে পড়েছেন যাত্রীরা গতকাল যশোর-খুলনা গামী সুন্দরবন এক্সপ্রেস লাইনচ্যুত হয়ে প্রায় ৩-৪ ঘন্টা লাইন চ্যুত অবস্থায় থাকে। উত্তর বঙ্গ এবং পশ্চিম বঙ্গ গামী যাত্রীরা বিপাকে পড়েছেন। সুন্দরবন এক্সপ্রেস  ট্রেনটির কারনে উত্তর বঙ্গ ও পশ্চিম  বঙ্গের সব গুলো ট্রেন অনেক লেট এ ছাড়া হচ্ছে, এতে সাধারন মানুষ স্টেশনে প্রায় ৬-৭ ঘন্টা বসে থাকতে হচ্ছে বলে জানিয়েছেন।

ট্রেনে আনন্দের ঈদযাত্রা দুর্ভোগে পরিণত হয়েছে। রেলের পশ্চিমাঞ্চলে ট্রেনের সময়সূচি ভেঙে পড়েছে। শুক্রবার সন্ধ্যা পর্যন্ত খুলনা, রাজশাহী, রংপুর বিভাগে ট্রেন সর্বোচ্চ সাড়ে ৯ ঘণ্টা পর্যন্ত বিলম্বে ছেড়েছে। রাতের ট্রেনগুলো ছয়-সাত ঘণ্টা দেরিতে ছাড়বে বলে আগে থেকেই ঘোষণা দিয়ে রেখেছে রেল কর্তৃপক্ষ। এ পরিস্থিতিতে ঈদের আগে দেশের উত্তর ও দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের পথে ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক হওয়ার সম্ভাবনা কম বলে রেলের কর্মকর্তারা মনে করছেন।
অগ্রিম টিকিটে ট্রেনে ঈদযাত্রা শুরু হয়েছে বুধবার থেকে। প্রথম দিন থেকেই উত্তরের পথে কিছু ট্রেন দেরিতে চলেছে। গতকাল টাঙ্গাইলে সুন্দরবন এক্সপ্রেস ট্রেনের বগি লাইনচ্যুত হওয়ায় ওই পথ ধরে চলা সব ট্রেনের সূচিই এলোমেলো হয়ে পড়ে। এরপরও ঘরে ফেরা মানুষের মধ্যে আনন্দের কমতি ছিল না। নগরবাসী পরিবার-পরিজন নিয়ে দলে দলে গ্রামের উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছেন হাসিমুখে।


Previous Post Next Post